Saturday , May 8 2021
Breaking News
Home / বাংলাদেশ / জনগণের সেবা করা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের পবিত্র দায়িত্ব : প্রধানমন্ত্রী

জনগণের সেবা করা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের পবিত্র দায়িত্ব : প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার:জনগণের কল্যাণে কাজ করতে প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল শনিবার সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ‘জনপ্রশাসন পদক-১৬’ প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এ নির্দেশ দেন। জনগণের সেবা করাকে প্রজাতন্ত্রে নিযুক্ত কর্মচারীদের পবিত্র দায়িত্ব বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

সরকারি কর্মচারীদের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের পবিত্র সংবিধানের ২১-এর ২ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, সকল সময় জনগণের সেবা করিবার চেষ্টা করা প্রজাতন্ত্রের কর্মে নিযুক্ত প্রত্যেক ব্যক্তির কর্তব্য।
কাজেই আমাদের সব সময় এটাই মনে রাখতে হবে। আমাদের একটাই লক্ষ্য, জনগণের সেবা করা, জনগণের কল্যাণ করা, জনগণের মঙ্গল করা, জনগণের উন্নতি করা। কাজেই আপনারা যে যেখানে যে দায়িত্ব পালন করছেন, প্রত্যেকেই সব সময় এটা মনে রাখবেন, শুধু চাকরির স্বার্থে চাকরি করছেন না। জনগণের সেবা করাটাই হচ্ছে সবচেয়ে পবিত্র দায়িত্ব। কারণ, বেতন-ভাতা যা কিছু আসে, তা তো আসে ঐ আমাদের সেই গরিব কৃষক, শ্রমিক, মেহনতি মানুষ তাদের ঘাম, তাঁদের রক্ত, তাদের শ্রম থেকে।
এ সময় জনগণের স্বার্থে সরকারের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের বর্ণনা দেন প্রধানমন্ত্রী। আন্তরিকতা ও দক্ষতার সাথে কাজ করার জন্য প্রশাসনের কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জানান তিনি।
সামপ্রতিক জঙ্গি হামলার কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, সমস্যা আসবেই। আমি মনে করি, বাংলাদেশই বোধ হয় পৃথিবীর একমাত্র দেশ, যেখানে মাত্র ১০ ঘণ্টার মধ্যে জঙ্গি দমন করে অনেক বন্দির জীবন রক্ষা করা সম্ভব হয়েছে।
ধর্মের প্রকৃত শিক্ষা যেন মানুষ পায়, সেদিকে লক্ষ্য রাখতে মাঠ পর্যায়ে কর্মরত কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন প্রধানমন্ত্রী। জঙ্গি বা সন্ত্রাসীরা যেভাবেই আসুক না কেন, তাদের দমন করতেই হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স বাস্তবায়ন করা হবে বলেও জানান তিনি।
সরকার সামরিক-বেসামরিক বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণের ওপর জোর দিয়েছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বিশ্ব প্রতিনিয়ত এগিয়ে যাচ্ছে। নতুন নতুন প্রযুক্তি আসছে। তার সাথে তাল মিলিয়েই আমাদের চলতে হবে। আজকের বিশ্বটা হচ্ছে একটা প্রতিযোগিতামূলক বিশ্ব। কাজেই এই প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে টিকে থাকতে হলে আমাদেরও সেই প্রতিযোগিতার সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হবে। আর তাল মিলিয়ে চলতে হলে অবশ্যই প্রশিক্ষণের ওপর সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। শুধু দেশের ভেতরেই নয়, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিদেশেও প্রশিক্ষণে পাঠানো হচ্ছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।
জনপ্রশাসন পদক সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রজাতন্ত্রের কাজে নিয়োজিত সরকারি কর্মচারীদের কাজের স্বীকৃতি, প্রেরণা, উৎসাহ, উদ্দীপনা প্রদান করা এটাই হচ্ছে আমাদের লক্ষ্য। আমরা তাদের মাঝে একটা উৎসাহ-উদ্দীপনা সৃষ্টি করা, প্রতিযোগিতা সৃষ্টি করা এবং সম্পাদিত কাজ যাতে খুব সুন্দরভাবে হয় এবং বাস্তবমুখী হয়, উন্নত হয় সে বিষয়গুলো মাথায় রেখেই আমরা বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ হাতে নিয়েছি।

এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দেশে প্রথমবারের মতো ‘জনপ্রশাসন পদক-১৬’ দেয়া হলো। দল ও প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি জনপ্রশাসনে কর্মরত জাতীয় ও জেলা পর্যায়ের ৩০ কর্মকর্তা-কর্মচারী, যাঁরা বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রেখেছেন, তাঁদের মধ্যে জনপ্রশাসন পদক বিতরণ করা হয়।

 

Check Also

খুলনায় স্বাস্থ্যবি‌ধি ভু‌লে চলছে গায়ে গা লাগিয়ে কেনাকাটা

খুলনায় স্বাস্থ্যবি‌ধি ভু‌লে চলছে গায়ে গা লাগিয়ে কেনাকাটা

বি এম রাকিব হাসান, খুলনা ব্যুরো:  মহামারী করোনা মানছে না মার্কেট গুলিতে বেশির ভাগ সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *