Monday , May 10 2021
Breaking News
Home / খবর / খুলনায় নিয়মবহির্ভূত অট্টালিকা নির্মাণে হিড়িক : বাড়ছে ঝুঁকি

খুলনায় নিয়মবহির্ভূত অট্টালিকা নির্মাণে হিড়িক : বাড়ছে ঝুঁকি

অট্টালিকা নির্মাণে হিড়িক

ছবি সংযুক্ত

বি এম রাকিব হাসান, খুলনা: ইমারত নির্মাণ বিধিমালা তোয়াক্কা না করে গড়ে তোলা হচ্ছে বড় বড় অট্টালিকা। এছাড়া ওই সব অট্টালিকার মালিকেরা নিজেদের সুবিধার্থে ফুটপাথ ও সড়কের বেশ কিছু জায়গা দখল করে নির্মাণ করছেন র‌্যাম্প (গাড়ি ওঠানামার ঢালু পথ)। ফলে বসবাসের জন্য দিন দিন ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠছে বিভাগীয় শহর খুলনা।
কর্পোরেশন সূত্রে জানা গেছে, খুলনা সিটি কর্পোরেশন (কেসিসি)-র মোট আয়তন ৪৫ দশমিক ৬৫ বর্গ কিলোমিটার। যার মধ্যে ৩১টি ওয়ার্ড রয়েছে। ৩১টি ওয়ার্ডে ৬৪০ দশমিক ৬৮ কিলোমিটার সড়ক রয়েছে। এছাড়া ১৭ দশমিক ৬২ বর্গমাইল আয়তনের এই অধিড়্গেত্রে রয়েছে প্রায় ৭৫ থেকে ৮০ হাজার হোল্ডিং।
কেডিএতে নিয়ম রয়েছে ১৯৯৬ সালের ইমারত নির্মাণ বিধিমালা অনুযায়ী সামনে ৫ ফুট ও ভবনের তিন পাশে ৩ ফুট জায়গা রেখে ভবন নির্মাণ করতে হবে। কিন’ এসব নিয়ম-কানুন না মেনেই নগরীতে বড় বড় অট্টালিকা নির্মিত হয়েছে। এছাড়া প্রতিনিয়ত চলমান রয়েছে ৬ তলা, ৭ তলা ও ৯ তলা থেকে আরও উঁচু উঁচু বহুতল নির্মাণ কাজও। অন্যদিকে বেশির ভাগ ভবন মালিক বাড়ির সামনে অবৈধভাবে র‌্যাম্প নির্মাণ করায় সড়কগুলো সংকুচিত হয়ে পড়ছে। এতে পানি নিষ্কাশনের নালাও সিমেন্টের নিচে ঢাকা পড়ছে।
নগরীতে বহুতল ভবনের পাশাপাশি বিভিন্ন শিড়্গা প্রতিষ্ঠান, বেসরকারি মেডিকেল হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোতে গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস’া না থাকায় শহরের বেশীর ভাগ সময় লেগে থাকে যানজট। তাছাড়া পথচারীদের চলাচলেও রয়েছে প্রতিবন্ধকতা।
নগরবাসীর বাসিন্দাদের অভিযোগ, সাধারণত বহুতল ভবন নির্মাণে সড়ক থেকে নিয়ম অনুযায়ী জায়গা ছাড়তে হয়। কিন’ বাসত্মবে তা মানা হচ্ছে না। অনেক ভবনে নিজস্ব পার্কিং ব্যবস’া না থাকায় গুরম্নত্বপূর্ণ সড়কে যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং করা হচ্ছে। কিছু কিছু ভবন মালিক আবার বাড়ির সামনে সড়ক ও ফুটপাত অবৈধভাবে দখল করে র‌্যাম্প নির্মাণ করছেন। ফলে সড়কগুলো সংকুচিত হয়ে পড়ছে। যা জনসাধারণের চলাচলে চরম ভোগানিত্ম তৈরি হচ্ছে।
সুজন-এর জেলা সম্পাদক কুদরত-ই-খুদা বলেন, আইন আছে, বাসত্মবায়ন নেই। আইনের যথাযথ প্রয়োগ করতে হবে। কিন’ সংশিস্নষ্ট কর্তৃপড়্গে গাফিলতিতে তা হচ্ছে না। কেডিএ’র এসব বাড়ির মালিকের বিরম্নদ্ধে কঠোর ব্যবস’া নেয়া উচিত। অন্যথায় নগরী হয়ে উঠবে চরম ঝুঁকিপূর্ণ।
খুলনা সিটি কর্পোরেশনের স্টেট অফিসার নুরম্নজ্জামান তালুকদার বলেন, এসব অবৈধ র‌্যাম্প উচ্ছেদ ও সড়কে পার্কিং বন্ধে অভিযান পরিচালনা করা হবে।
খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপড়্গের অথরাইজড অফিসার মুজিবুর রহমান বলেন, কেডিএ’র অধিড়্গেত্রে নিয়ম বহির্ভূত নির্মিত বাড়ির খেলাপী অংশ ভেঙে ফেলা হচ্ছে। প্রতি সপ্তাহে অনত্মত ৭ থেকে ৮টি বাড়ির খেলাপী অংশ ভাঙা হচ্ছে। জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।
কেএমপি’র উপ-কমিশনার (ট্রাফিক) মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং করে যানজট সৃষ্টি করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

Check Also

বাংলাদেশে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট আতঙ্ক

এই মুহূর্তে বিশ্ব চিন্তিত “ বাংলাদেশে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট আতঙ্ক

এই মুহূর্তে বিশ্ব চিন্তিত করোনাভাইরাস সংক্রমণের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট (ধরন) নিয়ে। ভারতকে তছনছ করে ইউরোপে পাড়ি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *