Tuesday , May 11 2021
Breaking News
Home / বাংলাদেশ / অপরাধ / ঘুষ খাওয়ার কথা স্বীকার করাতে জুনিয়র স্টাফকে বেধড়ক পিটুনি

ঘুষ খাওয়ার কথা স্বীকার করাতে জুনিয়র স্টাফকে বেধড়ক পিটুনি

ঘুষ

কোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকি রয়েছে এমন একটি প্রতিষ্ঠান থেকে ২০ হাজার টাকা ঘুষ নিয়েছেন এমন অভিযোগে জুনিয়র স্টাফকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেছেন কাস্টম এক্সসাইজ ভ্যাট কমিশনারেট (ঢাকা পশ্চিম) মিরপুর বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) রাকিবুল হাসান।

এই প্রহারের কথা যাতে ফাঁস না হয় তার জন্য মিথ্যা স্বীকারোক্তি লিখিত ও মোবাইলে ভিডিও করা হয়েছে। কিন্তু কেন ডিসি এভাবে একজন জুনিয়র স্টাফকে মারবেন এবং গোপন করার চেষ্টাই বা করবেন কেন? এর উত্তর দিয়েছেন আহত কন্টিজেন্স স্টাফ ইদ্রিস আলী মোল্লা। তিনি মিরপুর কমিশনারেটের পল্লবী ১ ও ২ সার্কেলে কাজ করেন।

তিনি জানিয়েছেন, গত সোমবার গোপন সূত্রে খবর পান যে, কল্যাণপুর সার্কেলের মিরপুর পীরেরবাগ এলাকার নিউ আরবি ক্লাসিক নামের একটি ছাপাখানা কমপক্ষে এক কোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে ব্যবসা করছে। তিনি ঐ সার্কেলের সংশ্লিষ্ট সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা জহির রায়হানকে ফোনে বিষয়টি অবহিত করেন। জহির রায়হান ঐ সময় হাইকোর্টে দায়িত্ব পালন করছিলেন। তিনি তার সুপার আমিনুল ইসলামকে বিষয়টি জানালে সুপার আরো দুইজন অফিস সহকারিকে নিয়ে গিয়ে ঐ প্রতিষ্ঠানের কাগজপত্র জব্দ করেন। বিশাল অঙ্কের রাজস্ব ফাঁকির বিষয়টি ঘটনাস্থলে বসেই ডিসি রাকিবুল ইসলামকে অবহিত করেন এবং আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য তার অফিসে জব্দ কাগজপত্র প্রেরণ করেন।

এদিকে রাকিবুল ইসলাম সোর্সের নাম হিসেবে ইদ্রিস আলীর কথা জানতে পেরে ১৪ মার্চ মঙ্গলবার বিকেলেই তাকে মিরপুর মাজার রোডে জাহিন প্লাজার ডিসি অফিসে ডেকে পাঠান। ইদ্রিস আলী বিকেল আনুমানিক সাড়ে ৪টার দিকে ডিসি অফিসে ঢোকার সাথে সাথে কলাপসিবল গেট বন্ধ করে দেন।

কোনো কিছু বোঝার আগেই গজারি লঠি দিয়ে বেধরক পেটানো শুরু করেন ডিসি রাকিবুল। তাকে সহযোগিতা করেন ঐ অফিসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা ফয়েজ, আরিফ ও ইব্রাহিম।

ডিসির অভিযোগ, তার কথা বলে ইদ্রিস আলী এবং জহির রায়হান ঐ প্রতিষ্ঠান থেকে ২০ হাজার টাকা ঘুষ নিয়েছেন। এই অভিযোগ অস্বীকার করায় ইদ্রিস আলীকে বেদম প্রহার করে তার কাছ থেকে ঘুষ নিয়েছে মর্মে একটি সাদা কাগজে স্বীকারোক্তি নেয়া হয় যা ভিডিও করে রেখেছেন ডিসি রাকিবুল। তাকে হুমকিও দেয়া হয় যাতে এই প্রহারের কথা প্রকাশ করা না হয়। প্রকাশ করলে তার চাকরির ক্ষতি হবে বলেও শাসানো হয়েছে।

গত বুধবার ইদ্রিস আলী এই ঘটনায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে (এনবিআর) লিখিত অভিযোগ করেছেন। ঐ অভিযোগপত্রে তিনি উল্লেখ করেছেন, সে এবং জহির রায়হান ঘুষ নিয়েছেন এমন কথা জোর করে স্বীকার করাতেই তাকে বেধরক পেটানো হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নিউ আরবি ক্লাসিকের মালিক মামুনুর রশিদ কাগজপত্র জব্দ করার বিষয়টি ডিসি রাকিবকে জানান এবং ব্যবস্থা না নিলে মাসোহারা ফেরত দেয়ার দাবি জানান। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ডিসি আক্রোসমূলকভাবে এই জুনিয়র স্টাফকে পিটিয়েছেন।

সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, ডিসি রাকিব ঐ প্রতিষ্ঠান থেকে মাসে একলাখ টাকা করে মাসোহারা পেতেন। যার কারণে ঐ প্রতিষ্ঠান সরকারকে কোনো রাজস্ব প্রদান করতনা। বিষয়টি জানাজানি হয়ে যাওয়ার কারণে এই ঘটনা ঘটিয়েছেন তিনি।

সেল ফোনে বিষয়টি জানতে চাওয়া হয়েছিল ডিসি রাকিবুল হাসানোর কাছে। বিভাগীয় ব্যবস্থা না নিয়ে কেন তিনি বেআইনিভাবে একজন স্টাফকে অন্যায়ভাবে পেটালেন তার কোনো ব্যাখা দেননি। তবে তিনি পেটানোর কথা স্বীকার করে বলেছেন, এটা ভুল বোঝাবুঝির কারণে হয়েছে।

Check Also

মোল্লাহাটে ৩৩৩-এ খবর পেয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিলেন ইউএনও

মিয়া পারভেজ আলম  (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ঃ  বাগেরহাটের মোল্লাহাটে ৩৩৩-এর মাধ্যমে খবর পেয়ে অসহায় দুস’ ৫’টি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *