Sunday , September 27 2020
Breaking News
Home / বাংলাদেশ / দেশের ৩৩ জেলায় চলমান বন্যা দুর্যোগে মৃতের সংখ্যা দুইশ ছাড়িয়ে গেছে
দেশের ৩৩ জেলায় চলমান বন্যা দুর্যোগে মৃতের সংখ্যা দুইশ ছাড়িয়ে গেছে

দেশের ৩৩ জেলায় চলমান বন্যা দুর্যোগে মৃতের সংখ্যা দুইশ ছাড়িয়ে গেছে

 

স্টাফ রিপোর্টার;   দেশের ৩৩ জেলায় চলমান বন্যা দুর্যোগে মৃতের সংখ্যা দুইশ ছাড়িয়ে গেছে। গত ৩০ জুন থেকে ১২ আগস্ট পর্যন্ত বন্যার পানিতে ডুবে ১৬৯ জন, বজ্রপাতে ১৩ জন, সাপের কামড়ে ১৭ জন, ডায়রিয়ায় একজন এবং অন্যান্য কারণে দুজনের সহ মোট ২০২ জনের মৃত্যু হয়। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় পানিতে ডুবে তিনজনের এবং সাপের কামড়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুম সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। বন্যা দুর্যোগে মৃত ২০২ জনের মধ্যে লালমনিরহাটে ১৭ জন, কুড়িগ্রামে ২৩ জন, গাইবান্ধায় ১৫ জন, নীলফামারীতে দুইজন, রংপুর তিনজন, সুনামগঞ্জে আটজন, সিরাজগঞ্জে ১৫ জন, জামালপুরে ৩১ জন, টাঙ্গাইলে ৩১ জন, রাজবাড়ীতে দুইজন, মানিকগঞ্জে ১৯ জন, ফরিদপুরে একজন, নেত্রকোনায় ছয়জন, গাজীপুর তিনজন এবং গোপালগঞ্জে দুইজনের মৃত্যু হয়। সূত্র জানায়, বর্তমানে দেশের ৩৩টি জেলার ২৬৯টি উপজেলার দুই হাজার ৫৯৩টি ইউনিয়নের মধ্যে এক হাজার ৭৮টি ইউনিয়ন বন্যা আক্রান্ত। স্বাস্থ্য অধিদফতরের দুই হাজার ৭৮৫টি মেডিকেল টিম বন্যা আক্রান্ত জেলাগুলোতে চিকিৎসা সেবা প্রদান করছে। আক্রান্ত জেলাগুলোতে এ পর্যন্ত ডায়রিয়ায় ১৪ হাজার ২১১ জন, শ্বাসতন্ত্রের প্রদাহে (আরটিআই) চার হাজার ৪৪৯ জন, বজ্রপাতে ৪৭ জন, সাপের কামড়ে ৫৩ জন, পানিতে ডুবে ১৬৯ জন, চর্মরোগে আট হাজার ৭২২ জন, চোখের প্রদাহে এক হাজার ১৮ জন এবং অন্যান্য রোগে ১১ হাজার ১৭৯ জনসহ মোট ৪০ হাজার ৭১০ জন বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হন।

দেশের ৩৩ জেলায় চলমান বন্যা দুর্যোগে মৃতের সংখ্যা দুইশ ছাড়িয়ে গেছে। গত ৩০ জুন থেকে ১২ আগস্ট পর্যন্ত বন্যার পানিতে ডুবে ১৬৯ জন, বজ্রপাতে ১৩ জন, সাপের কামড়ে ১৭ জন, ডায়রিয়ায় একজন এবং অন্যান্য কারণে দুজনের সহ মোট ২০২ জনের মৃত্যু হয়। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় পানিতে ডুবে তিনজনের এবং সাপের কামড়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুম সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। বন্যা দুর্যোগে মৃত ২০২ জনের মধ্যে লালমনিরহাটে ১৭ জন, কুড়িগ্রামে ২৩ জন, গাইবান্ধায় ১৫ জন, নীলফামারীতে দুইজন, রংপুর তিনজন, সুনামগঞ্জে আটজন, সিরাজগঞ্জে ১৫ জন, জামালপুরে ৩১ জন, টাঙ্গাইলে ৩১ জন, রাজবাড়ীতে দুইজন, মানিকগঞ্জে ১৯ জন, ফরিদপুরে একজন, নেত্রকোনায় ছয়জন, গাজীপুর তিনজন এবং গোপালগঞ্জে দুইজনের মৃত্যু হয়। সূত্র জানায়, বর্তমানে দেশের ৩৩টি জেলার ২৬৯টি উপজেলার দুই হাজার ৫৯৩টি ইউনিয়নের মধ্যে এক হাজার ৭৮টি ইউনিয়ন বন্যা আক্রান্ত। স্বাস্থ্য অধিদফতরের দুই হাজার ৭৮৫টি মেডিকেল টিম বন্যা আক্রান্ত জেলাগুলোতে চিকিৎসা সেবা প্রদান করছে। আক্রান্ত জেলাগুলোতে এ পর্যন্ত ডায়রিয়ায় ১৪ হাজার ২১১ জন, শ্বাসতন্ত্রের প্রদাহে (আরটিআই) চার হাজার ৪৪৯ জন, বজ্রপাতে ৪৭ জন, সাপের কামড়ে ৫৩ জন, পানিতে ডুবে ১৬৯ জন, চর্মরোগে আট হাজার ৭২২ জন, চোখের প্রদাহে এক হাজার ১৮ জন এবং অন্যান্য রোগে ১১ হাজার ১৭৯ জনসহ মোট ৪০ হাজার ৭১০ জন বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হন।

Check Also

মোল্লাহাটে বোমা তৈরীকালে

ক্বারী জাকির মোলস্নার বাড়িতে নিষিদ্ধ কোন সংগঠনের কার্যক্রম কি ? মোল্লাহাটে বোমা তৈরীকালে বিষ্ফোরণে যুবক আহত ; চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বাড়িতে

মিয়া পারভেজ আলম   মোল্লাহাট প্রতিনিধি :  মোল্লাহাটে বোমা তৈরীকালে বিষ্ফোরণে এক যুবক গুরম্নতর যখম হয়েছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *