Friday , August 14 2020
Breaking News
Home / আরও... / মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে কাটাখালী হাইওয়ে থানা পুলিশ তৎপর

মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে কাটাখালী হাইওয়ে থানা পুলিশ তৎপর

মহাসড়কে চাঁদাবাজি

বি এম রাকিব হাসান :    মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে কাটাখালী হাইওয়ে থানা পুলিশ তৎপর । কাটাখালী হাইওয়ে থানা পুলিশ পরিবহন মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠন গুলোর সাথে মিটিং করেছে। পাশাপাশি স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তি ও কমিউনিটি পুলিশের সমন্বয়ে চাঁদাবাজদের নিয়ন্ত্রনে হাইওয়ে পুলিশ কাজ করছে।কাটাখালী হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ যেকোন স’ানে যেকোন ব্যক্তি বা গোষ্টি কারো নাম করে কোন প্রকার চাঁদাবাজি করলে তাৎড়্গণিক পুলিশকে অবহিত করার জন্য অনুরোধ করেন। তাছাড়া মাইকিং এর মাধ্যমে কাটাখালী মোড়,খুঁদির বটতলা মোড়,নওয়াপাড়া মোড়,ফকিরহাট বিশ্বরোড মোড়,ফয়লা মোড়, ভাগা মোড় ও দ্বিগরাজ এলাকা সহ বিভিন্ন যানবাহন ষ্টপেজে ষ্ট্যাটার ও চাঁদাবাজদের সতর্ক করার পাশাপাশি বিভিন্ন উপায়ে মহাসড়কে চাঁদাবাজি রোধে কাটাখালী হাইওয়ে থানা পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এ প্রসঙ্গে কাটাখালী হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল ইসলাম জানান যে, মহাসড়কে কোন প্রকার চাঁদাবাজি সহ্য করা হবে না। সব ধরনের চাঁদাবাজি বন্ধে হাইওয়ে পুলিশের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

মহাসড়কে চাঁদাবাজি

মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে কাটাখালী হাইওয়ে থানা পুলিশ তৎপর । কাটাখালী হাইওয়ে থানা পুলিশ পরিবহন মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠন গুলোর সাথে মিটিং করেছে। পাশাপাশি স’ানীয় গন্যমান্য ব্যক্তি ও কমিউনিটি পুলিশের সমন্বয়ে চাঁদাবাজদের নিয়ন্ত্রনে হাইওয়ে পুলিশ কাজ করছে।কাটাখালী হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ যেকোন স’ানে যেকোন ব্যক্তি বা গোষ্টি কারো নাম করে কোন প্রকার চাঁদাবাজি করলে তাৎড়্গণিক পুলিশকে অবহিত করার জন্য অনুরোধ করেন। তাছাড়া মাইকিং এর মাধ্যমে কাটাখালী মোড়,খুঁদির বটতলা মোড়,নওয়াপাড়া মোড়,ফকিরহাট বিশ্বরোড মোড়,ফয়লা মোড়, ভাগা মোড় ও দ্বিগরাজ এলাকা সহ বিভিন্ন যানবাহন ষ্টপেজে ষ্ট্যাটার ও চাঁদাবাজদের সতর্ক করার পাশাপাশি বিভিন্ন উপায়ে মহাসড়কে চাঁদাবাজি রোধে কাটাখালী হাইওয়ে থানা পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এ প্রসঙ্গে কাটাখালী হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল ইসলাম জানান যে, মহাসড়কে কোন প্রকার চাঁদাবাজি সহ্য করা হবে না। সব ধরনের চাঁদাবাজি বন্ধে হাইওয়ে পুলিশের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

খুলনায় চিকিৎসককে পিটিয়ে হত্যা:
বিচারের দাবীতে বিএমএ’র মানববন্ধন

খুলনায় নদী
খুলনায় চিকিৎসককে পিটিয়ে হত্যা:

খুলনা ব্যুরো:   রোগীর স্বজনদের হামলায় খুলনার গলস্নামারী এলাকার রাইসা ক্লিনিকের পরিচালক ডা. আব্দুর রকিব খান (৫৯) নিহত হয়েছেন। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আবু নাসের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস’ায় তার মৃত্যু হয়। রাইসা ক্লিনিকে রোগীর মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ হামলার ঘটনা ঘটে।
এদিকে চিকিৎসককে পিটিয়ে হত্যাকারীদের শাসিত্ম ও পেশাগত নিরাপত্তার দাবিতে গতকাল বুধবার দুপুরে খুলনা মহানগরীর সাতরাসত্মার মোড়ে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছে বিএমএ।
নিহত রকিব উদ্দিন বাগেরহাট মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট টেনিং স্কুলের (ম্যাটস) অধ্যড়্গ ছিলেন। ডা. রাকিবের দুই ছেলে মেয়ে রয়েছে। মেয়ে এবার এসএসসি পাস করেছে। ছেলে প্রথম শ্রেণির শিড়্গার্থী।
জানা যায়, নগরীর মোহাম্মদ নগর এলাকার বাসিন্দা আবুল আলীর স্ত্রী শিউলী বেগমকে গত ১৪ জুন সিজারের জন্য রাইসা ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। ওই দিন বিকেলে অপারেশন হয়। বাচ্চা ও মা প্রথমে সুস’ ছিলেন। পরে রোগীর রক্তড়্গরণ শুরম্ন হলে গত ১৫ জুন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। সেখানের চিকিৎসকরাও রোগীর রক্তড়্গরণ বন্ধ করতে না পেরে ঢাকায় রেফার্ড করে। ঢাকায় নেওয়ার পথে ১৫ জুন রাতে শিউলী বেগম মারা যান।
নিহত ডা. রকিব খানের ছোট ভাই মো. সাইফুল ইসলাম জানান, রাইসা ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন ওই প্রসূতির মৃত্যুকে তার স্বজনরা ভুল চিকিৎসার অভিযোগ তুলে গত সোমবার রাতে ডা. রকিবকে বেধড়ক মারধর করে। এসময় মাথায় আঘাত লাগায় তার মসিত্মষ্কে রক্তড়্গরণ শুরম্ন হয়। গুরম্নতর অবস’ায় রাত ২টার দিকে তাকে খুলনা গাজী মেডিকেল ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়।
তিনি আরও জানান, সেখানে অবস’ার অবনতি হলে মঙ্গলবার বেলা ১১টায় তাকে আবু নাসের হাসপাতালে স’ানানত্মর করা হয়। সেখানে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস’ায় মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
আবু নাসের হাসপাতালের পরিচালক ডা. বিধান চন্দ্র গোস্বামী জানান, মাথায় আঘাতের কারণে তার মসিত্মষ্কে রক্তড়্গরণ হয়েছে। এ কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে। লাশ নিহতের বাড়িতে নেওয়া হয়েছে।

খুলনায় নদী
খুলনায় চিকিৎসককে পিটিয়ে হত্যা:

Check Also

ইলিশ

জালে ধরা পড়েনি ইলিশ জেলে মহাজনদের মাথায় হাত

শরণখোলা (বাগেরহাট) থেকে মেহেদী হাসান :    ৬৫ দিনের অবরোধ শেষে সাগরে গিয়ে অনেকেই ফিরেছেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *