Thursday , October 22 2020
Breaking News
Home / বাংলাদেশ / করোনা হতে আমরা যা শিখলাম (পর্ব ২) – ড. মুহাম্মদ বেলায়েত হুসাইন

করোনা হতে আমরা যা শিখলাম (পর্ব ২) – ড. মুহাম্মদ বেলায়েত হুসাইন

 2

মহান আল্লাহ তা’য়ালা পবিত্র কুরআনে কারীমায় বলেছেন, ‘আল্লাহ সবকিছুর স্রষ্টা এবং তিনি সবকিছুর তত্ত্বাবধায়ক।’(সূরা যুমার; ৬২)

মহান আল্লাহ তা’য়ালা ছাড়া এই বিশ্বব্রহ্মান্ডে যা কিছু আছে এর সব কিছুই মহান আল্লাহ তা’য়ালার সৃষ্ট বস্তু বা মাখলুক। আমরা সাধারণ দৃষ্টিতে এই মাখলুক হতে তার গুন প্রকাশ হতে দেখি যেমন, সূর্য মহান আল্লাহ তা’য়ালার একটি মাখলুক তার গুন হচ্ছে তাপ ও আলো দান করা, মেঘ মহান আল্লাহ তা’য়ালার একটি মাখলুক তার গুন হচ্ছে বৃষ্টি দান করা, গাভী মহান আল্লাহ তা’য়ালার একটি মাখলুক তার গুন হচ্ছে দুধ দান করা, মৌমাছি মহান আল্লাহ তা’য়ালার একটি মাখলুক তার গুন হচ্ছে মধু দান করা, গাছ মহান আল্লাহ তা’য়ালার একটি মাখলুক তার গুন হচ্ছে ফল ও ছায়া দান করা। এখন প্রশ্ন হচ্ছে মাখলুকের নিজ নিজ যে গুন তার মধ্যে রয়েছে এটা কি তার নিজের? আপাত দৃষ্টিতে মনে হতে পারে, সূর্য তাপ ও আলো দানকারী, মেঘ বৃষ্টি দানকারী, গাভী দুধ দানকারী, গাছ ফল ও ছায়া দানকারী, মৌমাছি মধু দানকারী কিন্তু একটু স্থির মস্তিস্কে চিন্তা করলেই বোঝা যাবে যে এর পিছনে মহান আল্লাহ তা’য়ালার কুদরত রয়েছে।

তাবলিগ জামাতের মুবাল্লিগ ভাই আব্দুল ওহহাব রহমাতুল্লাহি আলাইহি খুব সুন্দরভাবে এই মাখলুকের পরিচয় তুলে ধরেছেন, তিনি বলতেন,

১) ইয়ে মাখলুখ হেয়, ইয়ে খোদ নেহি বনা, আল্লাহ তা’য়ালানে আপনা কুদরতছে ইচকো বানায়া।

অর্থাৎ, এটি মাখলুক, এটি নিজে নিজে সৃষ্টি হয়নি, একে আল্লাহ তা’য়ালা নিজ কুদরতের দ্বারা সৃষ্টি করেছেন।

২) ইচকো আন্দারজো ছিফাত হেয় ইয়ে ইচকো আপনা নেহি হায়, আল্লাহ তা’য়ালানে আপনা কুদরতছে ইচকো আন্দার রাখখা।

অর্থাৎ, এর মধ্যে যে গুন আছে তা তার নিজের নয়, এই গুন আল্লাহ তা’য়ালার দেওয়া।

৩) ইয়ে ছিফাত জাহির করনেকেলিয়ে ভিহারআনগারি আল্লাহকা এরাদাকা মোহতাজ, ইয়ে খোদ কুচ নেহি করছাকতা।

অর্থাৎ, এই গুন প্রকাশ করার জন্যও সে আল্লাহর ইচ্ছার উপর নির্ভরশীল, এটি নিজে কিছুই করতে পারে না।

ভাই আব্দুল ওহহাব রহমাতুল্লাহি আলাইহির এই উক্তিগুলো হতে আমাদের কাছে এটি স্পষ্ট হয় যে, সূর্য নিজে নিজে সৃষ্টি হয়নি একে আল্লাহ তা’য়ালা নিজের কুদরতের দ্বারা সৃষ্টি করেছেন। এর মধ্যে তাপ ও আলো দান করার যে গুন তা এর নিজের নয় এই গুন আল্লাহ তা’য়ালার দেওয়া এবং এই গুন প্রকাশ করার জন্যও এটি আল্লাহর ইচ্ছার উপর নির্ভরশীল, এটি নিজে কিছুই করতে পারে না।

এই বিশ্ব জগতের যা কিছু আছে যেমন, মানুষ, জ্বীন, ফেরেশতা, পশুপাখি, কীটপতঙ্গ, গাছপালা, নদী-নালা, সমুদ্র-পাহাড়, আকাশ-বাতাস, চাঁদ-সূর্য, আগুন, পানি, মাটি সবই আল্লাহ তা’য়ালার-ই সৃষ্টি! এগুলো নিজে নিজে সৃষ্টি হয়নি, এগুলোকে আল্লাহ তা’য়ালা নিজ কুদরতের দ্বারা সৃষ্টি করেছেন। এদের মধ্যে যে গুন আছে তা এদের নিজের নয়, এই গুন আল্লাহ তা’য়ালার দেওয়া। এই গুন প্রকাশ করার জন্যও এগুলো আল্লাহর ইচ্ছার উপর নির্ভরশীল।

লক্ষ্য করুন, আমাদের প্রিয় রসূলে করীম সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে হত্যা করার জন্য শত্রুরা তাঁর বাড়ির চারপাশ ঘিরে ফেলেছিল। কাফির পালোয়ানদের চোঁখের সামনে দিয়েই প্রিয় নবীজী বের হয়ে চলে গেলেন! কাফিররা তাঁকে দেখেইনি! তাদের কিন্তু তখন ‘চোঁখ’ চোখের জায়গাতেই ছিল। আমাদের প্রিয় নবীজী তো তাদের সামনে দিয়েই বের হয়েছেন! কিন্তু আল্লাহ তা’য়ালার হুকুমে ঐ ‘চোঁখগুলি’ নবীজীকে দেখতেই পারেনি। যে চোখ আল্লাহ তা’য়ালার হুকুমে দেখে, সেই চোখই আবার আল্লাহ তা’য়ালার হুকুমে দেখে না। অর্থাৎ চোঁখ নিজে নিজে সৃষ্টি হয়নি, আল্লাহ তা’য়ালা নিজ কুদরতের দ্বারা তাকে সৃষ্টি করেছেন। তার মধ্যে দেখার যে গুন আছে তা তার নিজের নয়, এই গুন আল্লাহ তা’য়ালার দেওয়া। এই গুন প্রকাশ করার জন্যও তা আল্লাহ তা’য়ালার ইচ্ছার উপর নির্ভরশীল।

নমরূদ যখন হযরত ইব্রাহীম আলাইহিসসাল্লামকে আগুনে ফেলল, আল্লাহ তা’য়ালার হুকুমে আগুন হযরত ইব্রাহীম আলাইহিসসাল্লামের জন্য একদম শান্তির জায়গায় পরিণত হল! এত বড় আগুন, তাও ইব্রাহীম আলাইহিসসাল্লামের একটা পশমও পুড়াল না। যে আগুন আল্লাহ তা’য়ালার হুকুমে পুড়ায় আবার সেই আগুনই আল্লাহ তা’য়ালার হুকুমে পুড়ায় না। অর্থাৎ আগুন নিজে নিজে সৃষ্টি হয়নি, আল্লাহ তা’য়ালা নিজের কুদরতের দ্বারা সৃষ্টি করেছেন। এর মধ্যে পুড়ানোর যে গুন আছে তা এর নিজের নয়, এই গুন আল্লাহ তা’য়ালার দেওয়া। এই গুন প্রকাশ করার জন্যও আগুন আল্লাহ তা’য়ালার ইচ্ছার উপর নির্ভরশীল।

ইব্রাহীম আলাইহিসসাল্লাম মহান আল্লাহর হুকুমে পুত্র ঈসমাইল আলাইহিসসাল্লামকে কোরবানী করার জন্য তাঁর গলায় ধারালো ছুরি চালালেন কিন্তু ছুরি ঈসমাইল আলাইহিসসাল্লামের একটি পশমও কাটতে সক্ষম হল না। আর ঐ ছুরিতেই ইব্রাহীম আলাইহিসসাল্লাম বকরী কোরবানী করলেন। ছুরির ক্ষেত্রেও ঐ একই হুকুম, যে ছুরি আল্লাহ তা’য়ালার হুকুমে কাটে আবার সেই ছুরিই আল্লাহ তা’য়ালার হুকুমে কাটে না। ছুরির কাটার গুন প্রকাশ হওয়ার জন্য ছুরি আল্লাহর ইচ্ছার উপর নির্ভরশীল।

এজন্য জীবনের প্রতিটি পদক্ষেপে খুবভালভাবে মনে রাখতে হবে, মাখলুক নিজে নিজে সৃষ্টি হয়নি, একে আল্লাহ তা’য়ালা নিজের কুদরতের দ্বারা সৃষ্টি করেছেন। এর মধ্যে যে গুন আছে তা এর নিজের নয়, এই গুন আল্লাহ তা’য়ালার দেওয়া। এই গুন প্রকাশ করার জন্যও এটি আল্লাহর ইচ্ছার(কুদরতের) উপর নির্ভরশীল, এটি নিজে কিছুই করতে পারে না।(করোনা ও আমাদের করনীয়)

অনুরুপভাবে মনে রাখতে হবে,

১) করোনা নিজে নিজে সৃষ্টি হয়নি, একে আল্লাহ তা’য়ালা নিজের কুদরতের দ্বারা সৃষ্টি করেছেন।

২) এর মধ্যে রোগ সৃষ্টির যে গুন আছে তা তার নিজের নয়, এই গুন আল্লাহ তা’য়ালার দেওয়া।

৩) আর তার এই গুন প্রকাশ করার জন্যও সে আল্লাহর ইচ্ছার (কুদরতের) উপর নির্ভরশীল, সে নিজে কিছুই করতে পারে না।

আমরা লক্ষ্য করে থাকব, ত্রিশ বছর বয়সের টকবগে যুবক করোনাতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরন করেছে আবার একশত পনের বছরের বৃদ্ধা করোনা দ্বারা সংক্রমিত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে গেছে। আবার অনেকে সংক্রমিত হওয়ার পরও তাদের শরীরে কোন প্রকার রোগের লক্ষণই দেখা যায় নি। অর্থাৎ করোনা দ্বারা সংক্রমিত হলেই যে সে রোগাক্রান্ত হবে বা মৃত্যুবরণ করবে এমনটি নয়। এই ভাইরাস একজনের শরীর হতে অন্যজনের শরীরে চলে যেতে পরে কিন্তু তার শরীরে গিয়ে সে ক্রিয়া করবে কি না করবে বা কতটুকু ক্রিয়া করবে এটা আল্লাহর ইচ্ছার উপর নির্ভরশীল।

আল্লাহই সর্বজ্ঞ।

মহান আল্লাহ তা’য়ালা আমাদের সঠিকটা বুঝার তৌফিক দান করুন।(আমিন)

লেখক:

বায়োকেমিস্ট, মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রনালয়, খুলনা

০১৭১২৩১১৭৮৯

Check Also

নির্বাচনী আচরণ বিধি লংঘন করায় মেহেরপুরের গাংনীতে ভ্রাম্যমান আদালতে পোলিং এজেন্টের ২ হাজার টাকা জরিমানা

আমিরুল ইসলাম অল্ডাম : মেহেরপুরের গাংনীতে নির্বাচনী আচরণ বিধি লংঘন ও পোলিং এজেন্টের শর্ত ভঙ্গ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *