Thursday , October 1 2020
Breaking News
Home / বাংলাদেশ / পুলিশি হয়রানি মেনে না নেয়ার আহ্বান ডিএমপি কমিশনারের

পুলিশি হয়রানি মেনে না নেয়ার আহ্বান ডিএমপি কমিশনারের

KBDNEWS : ২০১৬ উপলক্ষে আয়োজিত এক সমাবেশে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় এনে রাজধানী ঢাকাকে সম্পূর্ণ নিরাপদ নগরী হিসেবে গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন। এছাড়াও পুলিশের পক্ষ থেকে রাজধানীবাসীকে হয়রানি করার বিষয়টি তিনি কোনোভাবেই মেনে নেবেন না, বরং পুলিশ জনগণের নিরাপত্তা প্রদান করবে, তাদেরকে শৃঙ্খলার মধ্যে রাখবে। মোট কথা তিনি চান পুলিশ জনগণের বন্ধু হয়ে কাজ করবে। অপরদিকে, রাজধানীর দুই কোটি মানুষের সাথে পুলিশ ওয়ান টু ওয়ান কথা বলবে বলেও জানিয়েছেন। গতকাল সোমবার দুপুরে রাজধানীর নিউমার্কেট থানা এলাকার গাউসিয়া মোড়ে আয়োজিত ‘বিট পুলিশিং

ডিএমপি কমিশনার আরো বলেন, নাগরিকদের দেয়া তথ্য সম্পূর্ণ গোপন রাখা হবে। এ তথ্য শুধুমাত্র অপরাধীদের খুঁজে বের করার কাজে ব্যবহৃত হবে। এ তথ্য কোনো সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বা সাংবাদিকসহ কাউকে দেয়া হবে না। প্রতিটি থানায় ১০ জন করে পুলিশ সদস্যকে আইটি ট্রেনিং ও প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। যাতে করে তারা প্রাপ্ত তথ্যগুলো সঠিকভাবে নিবন্ধন করতে পারে।

ডিএমপি কমিশনার সমাবেশে বলেন, পুলিশই জনগণ, জনগণই পুলিশ। পুলিশ জনগণের নিরাপত্তা দিবে, শৃঙ্খলার মধ্যে রাখবে। জনগণের বন্ধু হয়ে কাজ করবে এটাই স্বাভাবিক। পুলিশ জনগণকে হয়রানি করবে এ বিষয়টি কোনোভাবেই মেনে নেয়া হবে না। এছাড়াও সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় এনে রাজধানী ঢাকাকে সম্পূর্ণ নিরাপদ নগরী হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।

ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপস) শেখ মুহাম্মদ মারুফ হাসান বলেন, পুলিশ-জনগণের সম্পৃক্ততায় আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করা হবে। বাড়িওয়ালার কাছে তথ্য না থাকায় অপরাধীদের গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে না। তাই সকলের তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।

ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার আব্দুল বাতেন বলেন, নগরবাসীর তথ্য সংগ্রহের জন্য বিট পুলিশ কাজ করছে। প্রতিটি থানা এলাকার সংশ্লিষ্ট বিটের দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যরা জনগণের সঙ্গে যোগাযোগ করবে। তাদের তথ্য নিবে, জনগণকে সহায়তা করবে।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন ডিএমপি’র যুগ্ম-কমিশনার (ক্রাইম) কৃষ্ণপদ রায়, উপ-কমিশনার (মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স) মো. মারুফ হাসান সরদার, গাউসিয়া মার্কেট সমিতির সভাপতি মো. ফারুক, ঢাকা মহানগর দোকান মালিক সমিতির সভাপতি তৌফিক এহসান, রমনা জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) জসিম উদ্দিন, নিউ মার্কেট থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) ইয়াসিন আরাফাত, রমনা থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মশিউর রহমানসহ অন্যান্যরা।

Check Also

বেসরকারি মেডিকেলে

বেসরকারি মেডিকেলে ৭৫ শতাংশ স্থায়ী শিক্ষক রাখার শর্তে আইনের খসড়া অনুমোদন

স্টাফ রিপোর্টার :    বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে ৭৫ শতাংশ স্থায়ী শিক্ষক রাখতে হবে। ২৫ শতাংশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *